April 16, 2021, 2:37 am

#
Sangram Tv

খালেদা জিয়াকে বন্দি না করলে দিনের ভোট রাতে করা যেত না-যুক্তরাজ্য স্বেচ্ছাসেবক দল

সংগ্রাম ডেস্ক: বিএনপি’র প্রতিষ্ঠাতা শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান বীর উত্তমের রাষ্ট্রীয় খেতাব বাতিল ও নয় বছর স্বৈরাচার বিরোধী আন্দোলনের আপোষহীন দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলার প্রতিবাদে এবং দেশনায়ক জনাব তারেক রহমানের সকল মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার এর দাবিতে প্রতিবাদ সভা করেছে যুক্তরাজ্য স্বেচ্ছাসেবক দল।গত২২শে ফেব্রুয়ারি সোমবার যুক্তরাজ্য স্বেচ্ছাসেবক দলের এ প্রতিবাদ সভায় সভাপতিত্ব করেন স্বেচ্ছাসেবক দল যুক্তরাজ্যের সভাপতি নাসির আহমেদ শাহীন।মোহাম্মদ আবুল হোসেন এর পরিচালনায় কোরআন থেকে তেলাওয়াত করেন আশিকুল ইসলাম । প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্তিতি ছিলেন বিএনপি স্তায়ী কমিটির অন্যতম সদস্য নজরুল ইসলাম খান, প্রধান বক্তা ছিলেন বিএনপি’র সাংগঠনিক সম্পাদক ইমরান সালেহ প্রিন্স,যুক্তরাজ্য বিএনপি’র সভাপতি আব্দুল মালিক, সাধারণ সম্পাদক কয়সর এম আহমেদ।

এ সময় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী স্বেচ্ছাসেবক দলের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মুস্তাফিজুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক আব্দুল কাদের ভূঁইয়া জুয়েল, কানাডা বিএনপির সভাপতি ফয়সল আহমেদ চৌধুরী যুক্তরাজ্য বিএনপির সহসভাপতি আবেদ রাজা যুক্তরাজ্য বিএনপি’র সিনিওর যুগ্ন সম্পাদক পারভেজ মল্লিক, কেন্দ্রীয় স্বেচ্ছাসেবক দলের যুগ্ম সম্পাদক আক্তারুজ্জামান বাচ্ছু,যুক্তরাজ্য বিএনপির সাবেক যুগ্ন সম্পাদক কামাল উদ্দিন, খসরুজ্জামান খসরু, আসাদুজ্জামান আহমেদ, লন্ডন মহানগর বিএনপি’র সাংগঠনিক সম্পাদক খালেদ চৌধুরী, যুক্তরাজ্য জাসাস এর সভাপতি এমাদুর রহমান এমাদ, সহ আরো অনেক সিনিয়র নেত্রীবৃন্দ।

যুক্তরাজ্য স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি নাসির আহমেদ শাহীন এর স্বাগত বক্তব্যর মাধ্যমে অনুষ্টানটি শুরু করা হয় এর পর যুক্তরাজ্য স্বেচ্ছাসেবক দলের পক্ষ থেকে বক্তব্য রাখেন যুক্তরাজ্য স্বেচ্ছাসেবক দলের যুগ্ন সম্পাদক বদরুল ইসলাম, লন্ডন মহানগর স্বেচ্ছাসেবক দলের সাধারণ সম্পাদক মো: সাদেক আহেমদ, যুগ্ন সম্পাদক আজিম উদ্দিন, সিনিয়র সহ সভাপতি শরিফুল ইসলাম, মুস্তাফিজুর রহমান ফেরদাউস আলিম আল রাজি শাহ জামাল ডালিয়া লাকুরিয়া সহ উপস্তিত ছিলেন স্বেচ্ছাসেবক দলের বিভিন্ন দেশের সভাপতি সাধারন সম্পাদক সহ অসংখ্য নেতা কর্মী।

প্রধান অতিথী বক্তব্যে নজরুল ইসলাম খান বলেন,বিএনপি যখনই ক্ষমতায় এসেছে তখনই গণতন্ত্রের মুক্ত ধারা বইয়ে দিয়েছে। বাকশাল থেকে বহু দলীয় গণতন্ত্র, সংবাদ পত্রের স্বাধীনতা, মানুষের কণ্ঠের স্বাধীনতা নিশ্চিত করেছেন বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমান। তারই সহধর্মিণী, বেগম খালেদা জিয়া ৯ বছর সামরিক শাসনের বিরুদ্ধে লড়াই করে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করেছেন। এই গণতন্ত্রের প্রতীক বেগম খালেদা জিয়াকে বন্দি করা হয়েছে।

জনাব নজরুল ইসলাম খাঁন বলেন, বেগম খালেদা জিয়াকে বন্দি করেছে কারণ তাকে বন্দি না করলে দিনের ভোট রাতে করা যেত না।

তিনি বলেন, বায়ান্নর যে রক্তস্নাত চেতনা, যে আত্মত্যাগ সেটা আসলে ছিলো অধিকার প্রতিষ্ঠার আন্দোলন। সেটা আজও আমাদের উদ্বুদ্ধ করে, আমাদের সাহসী করে। বায়ান্নর চেতনা আমাদের চেতনাকে শাণিত করেছে, ধারালো করেছে বলেই আজও আমরা দৈত্যের ন্যায় একটা কতৃত্ববাদী শাসনের বিরুদ্ধে লড়াই করে বিএনপিসহ বিরোধী দল বিরোধীমত এক কাতারে দাঁড়িয়ে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠার সংগ্রাম করছি। র্সভায় আরোও উপস্থিত ছিলেন যুক্তরাজ্য মহিলা দলের সদস্য সচিব অন্জনা আলম, জাপান স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি হুসেন হায়দার, সিংগাপুর স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি আব্দুর রহীম,সাউতআফ্রিকা স্বেচ্ছাসেবক দলের মুরাদ খাঁন,সিলেট থেকে আফছর খান, বিএনপি নেত্রী সাজিয়া মিতি, সুমু ফারহানা,ফয়সাল চৌধুরী,স্বেচ্ছাসেবক দল নেতা সেলিম সরদার শওকত, আবু সাঈদ চৌধুরী শাকিল, তারেক আজিজ, মৌলভীবাজার স্বেচ্ছাসেবক দলের সহসভাপতি আমিরুল ইসলাম শাহেদ,আফজল হোসেন,প্রমুখ।

#

     আরো পড়ুন: