October 28, 2020, 9:29 am

#

ভারত সফরে না যাওয়ার কারণ জানালেন তামিম

পারিবারিক কারণে ভারত সফরে তামিম ইকবালের যাওয়া হচ্ছে না, তা জানা গিয়েছিল আগেই। এবার ভারতে না যাওয়ার ব্যাখ্যা দিলেন বাংলাদেশের এ ওপেনার। তামিম জানিয়েছেন, খেলতে না পেরে তিনি নিজেও ভীষণ হতাশ।

ভারতের উদ্দেশে আজ দেশ ছেড়েছে বাংলাদেশ দল। সেখানে তিন ম্যাচ টি-টোয়েন্টি ও দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজ খেলবে বাংলাদেশ। টি-টোয়েন্টি দলে তামিমের বদলি হিসেবে জায়গা পেয়েছেন ইমরুল। ভারতে এই প্রথমবারের মতো বাংলাদেশের পূর্ণাঙ্গ সফর। একই সঙ্গে আইসিসি টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ অভিযানের শুরুও এটি। এমন তাৎপর্যপূর্ণ সফরে দলের বাইরে থাকতে খারাপ লাগছে তামিমের। কিন্তু কখনো কখনো পরিবার ও আপনজনের পাশে ক্রিকেটও গৌণও হয়ে ওঠে। ফেসবুকে নিজের ভেরিফাইড পেজে সে সব কথাই বললেন দেশসেরা এ ওপেনার।

খেলতে না পারার হতাশা জানিয়ে লেখার শুরু করেন তামিম, ‘আপনারা জানেন, পারিবারিক কারণে ভারত সফর থেকে আমি বিরতি নিয়েছি। এই সিরিজে খেলতে না পেরে আমি নিজেও ভীষণ হতাশ।’ ভারত সফরের জন্য আলাদা করেই প্রস্তুতি নিয়েছিলেন তামিম। কিন্তু পারিবারিক দায়িত্ববোধ কখনো কখনো বড় হয়ে ওঠে বলেই জানালেন তিনি, ‘বাংলাদেশ প্রথমবার ভারতে পূর্ণাঙ্গ সিরিজ খেলতে যাচ্ছে। আইসিসি টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপেও আমাদের প্রথম ম্যাচ এই সফরে। এই সফর ও নতুন মৌসুমের জন্য আমি খুব ভালোভাবে প্রস্তুতি নিয়েছিলাম। দেশের বাইরে গিয়ে আলাদা করে এক মাস ফিটনেস ট্রেনিং করেছি। দেশে ফিরে ব্যাটিং অনুশীলন করেছি। শারীরিক ও মানসিকভাবে দারুণ প্রস্তুতি নিয়েছি। কিন্তু তার পরও সফরে যেতে পারছি না, কারণ কখনো কখনো পরিবার ও আপনজনের পাশে ক্রিকেট গৌণ হয়ে ওঠে।’

তামিম এরপর জানিয়েছেন, ‘আমি ও আমার স্ত্রী আমাদের দ্বিতীয় সন্তানের অপেক্ষায় দিন গুনছি। আমার স্ত্রীর শারীরিক অবস্থার কারণে আমাদের ধারণার চেয়ে একটু বেশি সময় ওকে হাসপাতালে থাকতে হচ্ছে। আমার মনে হয়েছে, এই সময়টায় ওর পাশে আমার থাকা উচিত। এ জন্যই ছুটি নিতে হয়েছে। এমনিতেই পরিবার থেকে অনেকটা সময় আমরা দূরে থাকি, তাদের প্রাপ্য সময়টুকু দিতে পারি না। আমাদের পরিবারের সদস্যরা অনেক ত্যাগ স্বীকার করেন। অন্য অনেক সময় না পারলেও জীবনের এ সময়গুলোতে অন্তত পরিবার আমাকে পাশে চাইতেই পারে।’

ক্রিকেট এবং বাংলাদেশ দলকেও মিস করার কথা জানালেন তামিম। কঠিন সময়ে পাশে থাকার জন্য ধন্যবাদ জানিয়েছেন সবাইকে, ‘আমি আমার দলকে মিস করব, ক্রিকেট মাঠকে মিস করব। তবে জীবনের এই গুরুত্বপূর্ণ সময়ে স্ত্রী যেন আমাকে মিস না করে, সেটুকু নিশ্চিত করতে চেয়েছি। সবার কাছে আমাদের জন্য দোয়া চাইছি। ইনশা আল্লাহ খুব দ্রুতই আবার আমাকে মাঠে দেখতে পাবেন। কঠিন সময়ে পাশে থাকার জন্য ও সমর্থনের জন্য সবাইকে ধন্যবাদ।’

৩ নভেম্বর দিল্লিতে টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রথম ম্যাচে ভারতের মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ। ১৪ নভেম্বর ইন্দোরে গড়াবে সিরিজের প্রথম টেস্ট।

#

     আরো পড়ুন: